মোবাইল ফোন নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ১০ টি অবাক করা তথ্য - Natore News | নাটোর নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ | বিনোদন খবর

Post Top Ad

Responsive Ads Here
মোবাইল ফোন নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ১০ টি অবাক করা তথ্য

মোবাইল ফোন নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ১০ টি অবাক করা তথ্য

Share This
আমার, আপনার সারাদিনটা তো কাটছে মোবাইল ফোন নিয়ে। ভাবতে পারেন একটা দিন মোবাইল ছাড়া! সেই অপরিহার্য মোবাইলের জানা-অজানা দশ অবাক করা তথ্য-
১০) গোসলের সময়ও ফোন-  জাপানে ৯০ শতাংশ মোবাইল ফোনই ওয়াটারপ্রুফ। কারণ সেখানকার বেশিরভাগ মানুষই স্নানের সময়ও ফোন ব্যবহার করে।
৯) সেই শুরু- ১৯৮৩ সালে আমেরিকায় প্রথমবার ফোন বিক্রি হয়। সেই সেটের দাম ছিল ৪ হাজার ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা।
৮) এসএমএস এসেছে- বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি এসএমএস পাঠানো হয় ফিলিপিন্স থেকে। সারাদিন প্রায় ১ লক্ষ কোটি এসএমএস আদানপ্রদান হয় ফিলিপিন্সে।
৭) মূত্র দিয়ে চার্জ- বিজ্ঞানীরা এমন এক ধরনের চার্জিং টেকনলজি আবিষ্কার করেছেন যা মানুষের মূত্র দ্বারা চার্জ হয়ে যাবে।
৬) দূষিত ফোন- বাড়ির টয়লেটের থেকে মোবাইল ফোনে ১৮ গুণ বেশি ব্যাকটেরিয়া থাকে।
৫) নোকিয়া- Nokia 1100- সেটটি গোটা বিশ্বে ২৫ কোটি বিক্রি হয়েছিল। এটাই দুনিয়ায় সবচেয়ে বেশি বিক্রিত গেজেট।
৪) অ্যাপেল হট কেক- ২০১২ সালে অ্যাপেল প্রতিদিন গড়ে ৩ লক্ষ ৪০ হাজার আই ফোন বিক্রি করেছিল। মাইক্রোসফটের সব প্রোডাক্টের থেকেও বেশি বিক্র হয় শুধু অ্যাপেলের আই ফোন।
৩) সাইডএফেক্ট- অনেক গবেষণার পর বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত মোবাইল ফোনের র‌্যাডিয়েশন থেকে অনিদ্রা রোগ, মাথাব্যথা এবং মনোসংযোগে ব্যাঘাত ঘটতে পারে।
২) চন্দ্রযান- আপনার মোবাইল ফোনে যত কম্পিউটিং পাওয়ার রয়েছে তার চেয়ে কম কম্পিউটিং পাওয়ার ছিল ১৯৬৯ সালে চাঁদে নামা চন্দ্রযান অ্যাপেলো ১১-এ।
১) যা পড়ে গেল- গোটা বিশ্বে মানুষের কাছে যত বেশি মোবাইল আছে তার চেয়ে বেশি আছে টয়লেট বা শৌচাগারে। হিসেব বলছে শুধু ইংল্যান্ডেই প্রতি বছর ভুল করে ১ লক্ষ ফোন টয়লেটের কমোডে পড়ে যায়।  

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here