বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্টগুলো - Natore News | নাটোর নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ | বিনোদন খবর

Post Top Ad

Responsive Ads Here
বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্টগুলো

বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্টগুলো

Share This

শুধু এক দেশ থেকে অন্য দেশেই না, একই দেশের বিভিন্ন শহরের মধ্যেও সবচেয়ে দ্রুত এবং নিরাপদ ভ্রমণের মাধ্যম হচ্ছে উড়োজাহাজ। আর সেজন্যই বিমান ভ্রমণকারীদের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বেড়ে চলছে। ২০১৭ সালে সারা শুধুমাত্র বিশ্বের প্রথম সারির ২০টি এয়ারপোর্টের মধ্য দিয়েই প্লেনে চড়ে ভ্রমণ করেছে প্রায় ১৫০ কোটি মানুষ, যা এর পূর্ববর্তী বছরের তুলনায় ৫.২ শতাংশ বেশি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রায় ১,২০০টি এয়ারপোর্ট থেকে সংগৃহীত তথ্য বিশ্লেষণ করে এমনই রিপোর্ট দিয়েছে এয়ারপোর্টস কাউন্সিল ইন্টারন্যাশনাল, তথা ACI।

চলুন দেখে নিই এসিআই এর রিপোর্ট অনুযায়ী যাত্রী সংখ্যার দিক থেকে বর্তমানে বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট কোনগুলো। উল্লেখ্য, এ সংখ্যা হিসেব করা হয় কোনো এয়ারপোর্ট থেকে প্রস্থানকৃত যাত্রীর সংখ্যা, এয়ারপোর্ট দিয়ে দেশটিতে প্রবেশ করা যাত্রীর সংখ্যা এবং এয়ারপোর্টটিতে ট্রানজিট গ্রহণ করা যাত্রীর সংখ্যা যোগ করার মাধ্যমে।

১০) চার্লস দ্য গল এয়ারপোর্ট
চার্লস দ্য গল বা প্যারিস চার্লস দ্য গল এয়ারপোর্ট (CDG) হচ্ছে ফ্রান্সের বৃহত্তম এবং ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তম এয়ারপোর্ট। এর নামকরণ করা হয়েছে ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট, ফিফথ ফ্রেঞ্চ রিপাবলিকের প্রতিষ্ঠাতা চার্লস দ্য গলের নামানুসারে। তবে স্থানীয়ভাবে এটি ঐ এলাকার নামানুরাসে রোইজি এয়ারপোর্ট নামেও পরিচিত। প্যারিসের উত্তর-পশ্চিম প্রান্ত থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এ এয়ারপোর্টটি বর্তমানে বিশ্বের দশম ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট। গত বছর এয়ারপোর্টটি দিয়ে যাতায়াত করেছে প্রায় ৬.৯ কোটি যাত্রী।
Image Source: aircosmosinternational.com

Image Source: Paris Shuttle Transfer

৯) সাংহাই পুডং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট
চীনের বৃহত্তম এবং ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট হচ্ছে সাংহাই পুডং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট (PVG)। সাংহাইয়ে দুটি এয়ারপোর্ট আছে, এর মধ্যে সাংহাই পুডং প্রধানত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলে ব্যবহৃত হয়। আর তাই মোট যাত্রী সংখ্যার হিসেবে বিশ্বের নবম ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট হলেও আন্তর্জাতিক যাত্রীসংখ্যার হিসেবে এটি বিশ্বের তৃতীয় ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট। এটি একইসাথে কার্গোর পরিমাণের দিক থেকেও বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম এয়ারপোর্ট। গত বছর এয়ারপোর্টটি দিয়ে যাতায়াত করেছে প্রায় সাত কোটি যাত্রী।
Image Source: landrum-brown.com

Image Source: Azurean Architecture

৮) হংকং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট
চীনের সাথে এশিয়ার অন্যান্য দেশের বিমান যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম হংকং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট (HKG)। এর অবস্থান হংকং এর চেপ লাপ কোক দ্বীপের ভরাটকৃত জমির উপর। স্থানীয়ভাবে এটি চেপ লাপ কোক এয়ারপোর্ট নামেও পরিচিত। যাত্রী সংখ্যার দিক থেকে এটি বিশ্বের অষ্টম ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট হলেও ২০১০ সাল থেকে কার্গোর পরিমাণের দিক থেকে এটি বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট। একইসাথে আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের যাত্রী হিসেব করলে এটি বিশ্বের তৃতীয় ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট। গত বছর এয়ারপোর্টটি দিয়ে প্রায় ৭.২ কোটি যাত্রী এবং এবং প্রায় ৫০ লাখ মেট্রিক টন কার্গো আসা-যাওয়া করেছে।
Image Source: Wikimedia Commons

Image Source: Heathrow

৭) লন্ডন হিথ্রো এয়ারপোর্ট
ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডনে অবস্থিত লন্ডন হিথ্রো এয়ারপোর্টটি (LHR) মূলত হিথ্রো এয়ারপোর্ট নামেই পরিচিত। সর্বমোট যাত্রীসংখ্যার দিক থেকে এর অবস্থান সপ্তমে হলেও এটি ইউরোপের ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট এবং আন্তর্জাতিক যাত্রী সংখ্যার দিক থেকে এটি বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট। গত বছর ৭.৮ কোটি যাত্রী এই এয়ারপোর্টটি ব্যবহার করেছে। ১২ বর্গ কিলোমিটার ভূমির উপর অবস্থিত এয়ারপোর্টটিতে ৪টি টার্মিনাল এবং ২টি রানওয়ে আছে। বর্তমানে এর ধারণক্ষমতা বৃদ্ধির প্রকল্পের অধীনে তৃতীয় একটি রানওয়ে নির্মাণাধীন আছে।
Image Source: Heathrow

Image Source: David-J-Osborn

৬) শিকাগো ও’হেয়ার ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনয় অঙ্গরাজ্যের শিকাগো ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের প্রকৃত নাম ও’হেয়ার ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট (ORD)। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় বিমান বাহিনীর এয়ারফিল্ড হিসেবে প্রথমে এর যাত্রা শুরু হয়। সে সময় মার্কিন নৌবাহিনীর প্রথম মেডেল অফ অনার পাওয়া সৈনিক লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এডওয়ার্ড হেনরি ও’হেয়ারের নামানুসারে এর নামকরণ করা হয়। আটটি রানওয়ে বিশিষ্ট এয়ারপোর্টটি বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম প্রধান বিমানবন্দর। গত বছর প্রায় ৮ কোটি যাত্রী বিমানবন্দরটি ব্যবহার করেছে।
Image Source: mundoemprosa.com

Image Source: thousandwonders.net

৫) লস অ্যাঞ্জেলস ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট
লস অ্যাঞ্জেলস ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, যা প্রচলিতভাবে এলএএক্স (LAX) নামে পরিচিত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের প্রধান বিমানবন্দর। এটি যুক্তরাষ্ট্রের সমগ্র পশ্চিম উপকূলের প্রধান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। চারটি সমান্তরাল রানওয়ে বিশিষ্ট এয়ারপোর্টি গত বছর ব্যবহার করেছে ৮.৪ কোটি যাত্রী। এটি বিশ্বের পঞ্চম এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চতুর্থতম ব্যস্ত বিমানবন্দর। ট্রানজিট বাদ দিয়ে শুধুমাত্র উৎস এবং গন্তব্য বিবেচনা করলে এটি বিশ্বের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক যাত্রী দ্বারা ব্যবহৃত এয়ারপোর্ট। 
Image Source: vignette.wikia.com

Image Source: ehc-global.com

৪) টোকিও হানেদা এয়ারপোর্ট
টোকিও ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টটি সাধারণভাবে টোকিও হানেদা এয়ারপোর্ট (HND) নামে পরিচিত। এটি জাপানের রাজধানী টোকিওর দুটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের একটি। ১৯৭৮ সালের পূর্ব পর্যন্ত এটিই ছিল টোকিওর প্রধান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। কিন্তু ১৯৭৮ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত এটি মূলত অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচলের কাজে ব্যবহৃত হতো। ২০১০ সালে নতুন একটি টার্মিনাল এবং চতুর্থ রানওয়ে যুক্ত হওয়ার পর এতে পুনরায় আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল শুরু করে। গত বছর এই এয়ারপোর্ট ব্যবহার করেছে প্রায় ৮.৫ কোটি যাত্রী।
Image Source: airwaysmag.com

Image Source: Wikimedia Commons

৩) দুবাই ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট
সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধান আন্তর্জাতিক এয়ারপোর্ট হলো দুবাই ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট (DXB)। এটি মধ্যপ্রাচ্যের সাথে ইউরোপের যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম। মোট যাত্রীসংখ্যার দিক থেকে তৃতীয় ব্যস্ততম হলেও আন্তর্জাতিক যাত্রী সংখ্যা হিসেব করলে এটি বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট। গত বছর এয়ারপোর্টটি ব্যবহার করেছে সর্বমোট ৮.৮ কোটি যাত্রী। এর তৃতীয় টার্মিনালটি বিশ্বের সর্ববৃহৎ এয়ারপোর্ট টার্মিনাল এবং ক্ষেত্রফলের দিক থেকে বিশ্বের দ্বিতীয় সর্ববৃহৎ ভবন। দুবাইয়ের জিডিপির ২৭% এবং কর্মসংস্থানের ২১% এখান থেকে আসে।
Image Source: Gavin Hellier

Image Source: dubai-airport.xyz

২) বেইজিং ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট
চীনের রাজধানী বেইজিংয়ের প্রধান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হচ্ছে বেইজিং ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট (PEK)। বেইজিং শহরের কেন্দ্র থেকে এর অবস্থান মাত্র ৩২ কিলোমিটার দূরে। ২০১০ সাল থেকেই এটি বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে। গত বছর এয়ারপোর্টটি দিয়ে যাতায়াত করেছে প্রায় সাড়ে ৯ কোটি যাত্রী। এতে তিনটি টার্মিনাল এবং তিনটি রানওয়ে আছে। ২০০৮ সালের বেইজিং অলিম্পিক উপলক্ষ্যে চালু হওয়া এর তৃতীয় টার্মিনালটি দুবাই ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের পরে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম টার্মিনাল।  
বেইজিং ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের তৃতীয় টার্মিনাল; Image Source: Ma Wenxiao

টার্মিনালের অভ্যন্তরের দৃশ্য; Image Source: Ma Wenxiao

১) হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন আটলান্টা ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যেের আটলান্টায় অবস্থিত হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন আটলান্টা ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টটি (ATL) গত বছরের মতো এ বছরও বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট হিসেবে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে। গত বছর এয়ারপোর্টটি দিয়ে যাতায়াত করেছে প্রায় ১০.৪ কোটি যাত্রী। অর্থাৎ প্রতিদিন গড়ে এয়ারপোর্টটি দিয়ে যাতায়াত করে প্রায় ২ লাখ ৬০ হাজার যাত্রী। যাত্রী সংখ্যার বিবেচনায় এয়ারপোর্টটি ১৯৯৮ সাল থেকে টানা বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে।

এয়ারপোর্টটির নামকরণ করা হয়েছে এর দুজন মেয়রের নামানুসারে। প্রায় ১,৯০০ হেক্টর জমির উপর নির্মিত এয়ারপোর্টটিতে ২০৯টি অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক গেট এবং পাঁচটি সমান্তরাল রানওয়ে আছে। এটি মূলত ডেল্টা এয়ারলাইন্সের প্রধান কেন্দ্র। তবে যাত্রী সংখ্যায় বিশ্বের ব্যস্ততম এয়ারপোর্ট হিসেবে বিবেচিত হলেও এর যাত্রীদের অধিকাংশই অভ্যন্তরীণ যাত্রী। শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক যাত্রীদের সংখ্যা হিসেব করলে ২০টি ব্যস্ততম এয়ারপোর্টের মধ্যেও এর স্থান হবে না। যুক্তরাষ্ট্রের ভেতরেই আন্তার্জাতিক যাত্রীর সংখ্যা বিবেচনায় এর অবস্থান সাত নম্বরে।
Image Source: Gresham Smith

Image Source: SEGD


Post Bottom Ad

Responsive Ads Here