বিদেশ সফরে সব সময় আনুশকার সঙ্গ চেয়ে কোহলির চিঠি - Natore News | নাটোর নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ | বিনোদন খবর

Post Top Ad

Responsive Ads Here
বিদেশ সফরে সব সময় আনুশকার সঙ্গ চেয়ে কোহলির চিঠি

বিদেশ সফরে সব সময় আনুশকার সঙ্গ চেয়ে কোহলির চিঠি

Share This

দীর্ঘ বিদেশ সফর থাকলে দীর্ঘদিন পরিবারের লোকজনকে ছেড়ে থাকতে হয়। এতে মানসিক দিক থেকে একটা চাপ থাকে। ভারতীয় দলের ক্রিকেটাররা অনেকদিন ধরেই দাবি তুলছিলেন, বিদেশ সফরে যেন স্ত্রীকে সর্বক্ষন সঙ্গে রাখার অনুমতি দেয় বিসিসিআই। এবার বিদেশ সফর চলাকালীন স্ত্রীকে সব সময় সঙ্গে রাখার দাবি তুললেন টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক বিরাট কোহলি স্বয়ং। 
ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নিয়মানুযায়ি, ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফরা বিদেশ সফরে থাকাকালীন মাত্র দুই সপ্তাহ নিজেদের সঙ্গে স্ত্রীকে রাখতে পারবেন। এবার বিসিসিআইয়ের এক শীর্ষ কর্মকর্তার কাছে আবেদন করলেন বিরাট কোহলি। বিদেশ সফর চলাকালীন টিমের প্লেয়ার ও স্টাফরা যেন গোটা সময়টা স্ত্রীকে নিজেদের সঙ্গে রাখতে পারেন! 
জানা গেছে, ইতিমধ্যে ব্যাপারটা সুপ্রিম কোর্ট নিয়োযিত কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স (সিওএ)-র কাছেও পৌঁছেছে। সিওএ প্রধান বিনোদ রাই ও ডায়না এডুলজি এই ইস্যুতে ভাবনা-চিন্তা শুরু করেছেন বলেও খবর পাওয়া গেছে। সিওএর তরফে ভারতীয় দলের ম্যানেজার সুনীল সুভ্রমনিয়ামকে নিয়ম বদলের জন্য আবেদন করতে বলা হয়েছে। তবে এই ব্যাপারে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে চাইছে না সিওএ। বরং বোর্ডের পরবর্তী আলোচনাসভায় এই প্রসঙ্গ উত্থাপনের ভাবনা রয়েছে বিনোদ রাইদের।
বিসিসিআইয়ের এক কর্মকর্তা বলছেন, বিরাট কোহলি, শিখর ধাওয়ানের স্ত্রীরা দলের সঙ্গে সফর করে। কিন্তু পুরো সময়টা থাকতে পারে না। নিয়মের বাঁধা থাকায় তাদের নির্ধারিত সময়ের পর দেশে ফিরতে হয়। বিরাট নিজে এই নিয়মে বদল চাইছেন। 
উল্লেখ্য, বিদেশ সফরে ক্রিকেটারদের সঙ্গে স্ত্রীদের থাকা কতটা সঙ্গত, এই ব্যাপারে এর আগেও বিশ্ব ক্রিকেট দ্বিধাবিভক্ত হয়েছে। একটা সময় অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটে এই নিয়ে অনেক ঘটনা ঘটেছিল। অ্যাসেজ হারের পর অনেকেই অজি ক্রিকেটারদের খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য তাদের স্ত্রীদের দায়ি করেছিলেন।

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here