যেসব চমক ঘটতে পারে ২০১৮-র ফুটবলে - Natore News | নাটোর নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ | বিনোদন খবর

Post Top Ad

Responsive Ads Here
যেসব চমক ঘটতে পারে ২০১৮-র ফুটবলে

যেসব চমক ঘটতে পারে ২০১৮-র ফুটবলে

Share This
২০১৮ ফুটবল-ভক্তদের কী দিতে পারে। কোন ঘটনা চমকে দেবে পুরো ফুটবল বিশ্বকে? গোল ডটকমের পিটার স্টনটন এমনই কিছু সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন। দেখে নিন তো স্টনটনের পূর্বাভাসের সঙ্গে আপনারটা মিলছে কি না! ব্রাজিলকে ছুঁয়ে ফেলবে জার্মানি
বিশ্বকাপে সফলতম দল? অবশ্যই ব্রাজিল। কিন্তু এবার সে প্রশ্নের জোড়া উত্তর মিলতে পারে। পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের ছুঁয়ে ফেলতে পারে জার্মানি। ২০১৭ সালের কনফেডারেশনস কাপই এমন সম্ভাবনা জাগিয়েছে। মূল স্কোয়াডকে ছুটিতে পাঠিয়েছিলেন কোচ জোয়াকিম লো। অনূর্ধ্ব-২১ দল ব্যস্ত ছিল ইউরো নিয়ে। তাই কোনো রকমে একটা দ্বিতীয় দল নিয়ে রাশিয়া গিয়েছিল চারবারের বিশ্বকাপজয়ীরা। তবু পূর্ণ শক্তির রাশিয়া ও চিলিকে হারিয়ে ট্রফি নিয়ে উল্লাস করেছেন জুলিয়ান ড্রেক্সলাররা। তাই রাশিয়া বিশ্বকাপে জার্মানিকে এগিয়ে রাখতে হচ্ছে।
সিরি ‘আ’ নাপোলির অর্ধযুগ ধরেই ইতালিয়ান লিগের দিকে নজর দেওয়ার উপায় নেই। কী লাভ বলুন, প্রতিবারই প্রায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় লিগ জিতে নিচ্ছে জুভেন্টাস। ২০১৭-১৮ মৌসুম অবশ্য অন্য কিছুর ইঙ্গিত দিচ্ছে। ইউরোপের বাকি চার শীর্ষ লিগেই শিরোপার মীমাংসা প্রায় হয়েই গেছে। কিন্তু সিরি ‘আ’তে একদম গায়ে গা লাগিয়ে চলছে নাপোলি, জুভেন্টাস ও ইন্টার মিলান। দুর্দান্ত আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলা নাপোলির হাতেই প্রায় তিন দশক পর শিরোপা দেখছেন সবাই। গার্দিওলার কোয়াড্রপল
‘ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ সবচেয়ে কঠিন লিগ’—এমন কথায় এখন হয়তো মুচকি হাসেন পেপ গার্দিওলা। লিগে ২২ ম্যাচে এখনো হারেননি। ২০ ম্যাচেই জয় পেয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। টানা ১৮ জয়ে দাঁড়ি পড়েছে কাল ক্রিস্টাল প্যালেসের মাঠে। তাতেও নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চেলসির চেয়ে ১৪ পয়েন্ট এগিয়ে দলটি। প্রথম কোনো কোচ হিসেবে ইংল্যান্ডের ট্রেবল (লিগ, এফএ কাপ ও লিগ কাপ) জেতার ভালো সম্ভাবনা আছে গার্দিওলার। সঙ্গে চ্যাম্পিয়নস লিগটাও যদি নিয়ে নিতে পারেন, তাহলে তো হলোই! এমনকি এক বর্ষপঞ্জিতে সাতটি ট্রফি জিতে বার্সার হয়ে ছয় ট্রফি জেতার কীর্তিটাও পেরিয়ে যেতে পারেন বৈকি! ব্যালন ডি’অরে নতুন কেউ
ফ্রান্স ফুটবলের এই পুরস্কার গত ১০ বছর ধরেই মেসি-রোনালদোর দখলে। কিন্তু ২০১৮ বিশ্বকাপের বছর। নেইমার, টনি ক্রুস, হ্যারি কেইন, এমবাপ্পে কিংবা কেভিন ডি ব্রুইনার মতো খেলোয়াড়দের জন্য এবারই সবচেয়ে ভালো সুযোগ। ক্লাবের হয়ে ভালো একটা মৌসুম আর সে সঙ্গে বিশ্বকাপে দলকে কাঙ্ক্ষিত সাফল্য এনে দিলেই চলবে। ২০০৭ সালের পর নতুন কোনো সঙ্গী পাবেন মেসি-রোনালদো। নিজের রেকর্ড নিজেই ভাঙবেন নেইমার
ছয় মাস হয়নি ফুটবলকে ২২২ মিলিয়ন ইউরোর চেক কেমন হয়, সেটা দেখিয়েছেন নেইমার। বাজারে গুঞ্জন, খুব শিগগির এ চেককেও খেলো বানিয়ে দেবেন এই ফরোয়ার্ড। রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতির একমাত্র লক্ষ্য হয়ে দাঁড়িয়েছেন নেইমার। নেইমারও নাকি পিএসজিতে যাওয়ার সিদ্ধান্তটা ভুল মনে করছেন এখন। তাই নতুন বিশ্ব রেকর্ড দেখার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।
ছাঁটাই, ছাঁটাই, ছাঁটাই! ২০১৮ সালে কোচদের ছাঁটাইয়ের মিছিল লাগতে পারে। যেসব গুঞ্জন চলছে, তাতে রিয়াল মাদ্রিদের ব্যর্থতার দায় নিয়ে সরে যেতে হতে পারে জিনেদিন জিদানকে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হোসে মরিনহো, পিএসজির উনাই এমেরি, চেলসির আন্তোনিও কন্তেকে নাকি এবার চাকরি হারাতে হতে পারে। ব্যর্থতা নয়, সাফল্যের জন্যই ডিয়েগো সিমিওনেকে কোচ হিসেবে হারাবে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। বিশ্বকাপে মুলারের ইতিহাস মাত্র দুটো বিশ্বকাপ খেলেছেন থমাস মুলার। এতেই বিশ্বকাপের কিংবদন্তিদের তালিকায় চলে এসেছেন এই জার্মান ফরোয়ার্ড। মাত্র ১৩ ম্যাচে ১০ গোল তাঁর। বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ডটি আরেক জার্মানের দখলে। মিরোস্লাভ ক্লোসার ১৬ গোলের রেকর্ড ভাঙতে মুলারকে একটু কষ্ট করতে হবে। কিন্তু গ্রুপে মেক্সিকো, সুইডেন ও দক্ষিণ কোরিয়ার মতো দলগুলোর উপস্থিতি কাজটা সহজ করে দেওয়ার কথা। ইনিয়েস্তার বিকল্প কুতিনহো আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা বার্সেলোনার কিংবদন্তি হয়ে গেছেন আরও তিন-চার বছর আগেই। কিন্তু এ মৌসুমে তাঁকে মাঠে খুব একটা দেখা যাচ্ছে না। যতক্ষণ মাঠে থাকেন মাঠ মাতাচ্ছেন বটে কিন্তু ৯০ মিনিট এখনো খেলা হয়নি তাঁর। ইনিয়েস্তার বিকল্প এই জানুয়ারিতে না হোক জুলাইয়েই নিয়ে আসতে চাইছে বার্সেলোনা। আর সে ক্ষেত্রে দলটির পছন্দ দুই ব্রাজিলিয়ান। লিভারপুলের ফিলিপে কুতিনহোকে দলে টানতে ১২০ মিলিয়ন ইউরোর বেশি খরচ করতে হবে। তবে গ্রেমিওর আর্থারকে এর তিন ভাগের এক ভাগ মূল্যেই আনা সম্ভব। স্পেনে ফিরবে মেসি ও বার্সার রাজত্ব লা লিগায় অর্ধমৌসুমেই দুইয়ে থাকা দলের চেয়ে ৯ পয়েন্টে এগিয়ে গেছে বার্সেলোনা। রিয়ালের চেয়ে ১৪ পয়েন্টে এগিয়ে আছে তারা। গোলেও লিওনেল মেসি অনেক এগিয়ে আছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর চেয়ে। তাই এক বছর বিরতিতে দিয়ে স্পেনের রাজত্ব আবারও মেসি ও বার্সেলোনার হাতেই ফিরছে।

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here